পিন ও সাসপেনশন টাইপ ইনসুলেটরের বর্ণনা | Pin and Suspension Insulator

0
131
পিন ও সাসপেনশন

প্রিয় পাঠক আজকে আমরা পিন ও সাসপেনশন টাইপ ইনসুলেটর সম্পর্কে জানবো।

পিন টাইপ ইনসুলেটরঃ

পিন টাইপ ইনসুলেটর ট্রান্সমিশন এবং ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেমে নিম্ন চাপের লাইন থেকে ৩৩ কেভি লাইন পর্যন্ত ব্যবহার করা হয়। অধিক উর্দ্ধের ভোল্টেজে ব্যবহার করতে গেলে এই ধরনের ইনসুলেটর আকৃতিতে বৃহৎ ও ভারি হয়, পিনের দৈর্ঘ্যও বেশি হয়, ক্রস আর্মে অধিক চাপ পড়ে, দাম বেশি হয়। তাছাড়া কোন কারণে ইনসুলেটরে একটু আচড় বা ফাটল দেখা দিলে সমগ্র ইউনিট বদলাতে হয়। এজন্য ৩৩ কেভির চেয়ে বেশি ভোল্টেজ ব্যবহৃত হয় না। অল্প ভোল্টেজের এলটি টাইপ পিন ইনসুলেটর একটিমাত্র চিনামাটির অংশ দিয়ে তৈরি করা হয়। লিকেজ পথ বৃদ্ধির জন্য একাধিক অংশ জোড়া দিয়ে ইনসুলেটর তৈরি করা হয়।

সাসপেনশন টাইপ ইনসুলেটরঃ

পিন টাইপ ইনসুলেটর যেহেতু ৩৩কেভির উর্দ্ধে ব্যবহার করা যুক্তিযুক্ত নহে, সেজন্য লাইনের কার্যকরী ভোল্টেজ ৩৩ কেভির অধিক হলে লাইনে একাধিক ডিস্ক সম্বলিত সাসপেনশন টাইপ ইনসুলেটর ব্যবহার করতে হয়। প্রতিটি ডিস্ক ১১ কেভির জন্য তৈরি করা হয়। সাসপেনশন টাইপ ইনসুলেটর ট্যানজেন্ট টাইপ টাওয়ারেও ব্যবহার করা চলে। এই ইনসুলেটর ক্রস আর্মের সাথে ঝুলানো থাকে এবং এর শেষ প্রান্তের সাথে লাইনের পরিবাহী সংযুক্ত হয়। সাসপেনশন টাইপ ইনসুলেটরের সম্পূর্ণ সংযোজিত অংশকে স্ট্রিং বা মালা বলে। এই স্ট্রিং এর সাথে বিভিন্ন কার্যকরী ভোল্টেজ অনুযায়ী ইনসুলেটর ডিস্ক সংযোজিত করতে হয়। ইনসুলেটর স্ট্রিং-এ কতগুলি ডিস্ক থাকবে, তা নির্ভর করে লাইনের ভোল্টেজ, আবহাওয়াজনিত অবস্থা এবং পরিবহণ লাইন নির্মানের প্রকারভেদের উপর।

সাসপেনশন ইনসুলেটর উচ্চ ভোল্টেজ লাইনের জন্য বিশেষ উপযোগী। ডিস্কের সংখ্যা, যেমন- ৩৩ কেভি লাইনে ৩টি, ৬৬ কেভি লাইনে ৫/৬ টি এভাবে হয়। তবে উর্দ্ধের কেভি লাইনে যেমন, ১৩২ কেভি, ২৩০ কেভি বা আরোও উর্দ্ধের ক্ষেত্রে ডিস্কের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে আরও কম হয়ে থাকে। সাসপেনশন টাইপ ইনসুলেটর ডিস্কের সংযোগের দিক থেকে দুই ধরনের হয়, যথা- বল ও সকেট টাইপ, ক্লোভস টাইপ

শ্যাকল বা রীল বা স্পুল টাইপ ইনসুলেটরঃ

শ্যাকল ইনসুলেটর এলটি লাইনের টার্মিনাল, বেশি বিচ্যুতি কোণের অ্যাঙ্গেল ও সেকশন পোলে ব্যবহৃত হয়। বিশেষ করে ৪০০/২৩০ ভোল্ট লাইনের পোলে যথেষ্ট ব্যবহার করা হয়। লাইনের পোল থেকে বাসাবাড়ি, কলকারখানা ও বিভিন্ন স্থানে সার্ভিস কানেকশন নেওয়ার সময় পরিবাহী তার শ্যাকল ইনসুলেটরের উপর দিয়ে নেয়া হয়।

ইনসুলেটর অকেজো হওয়ার কারণঃ

  • ইনসুলেটরে ফাটল দেখা দিলেঃ সাধারণত ইনসুলেটরের ভিতরে প্রবিষ্ট ইনসুলেটর পিন বা সংযোগের ধাতব অংশের সংকোচন ও প্রসারণের জন্য ইনসুলেটরে ফাটল দেখা দিতে পারে। তাছাড়া পোর্সিলিন ও সিমেন্টের সংযোগস্থলে বিভিন্ন ধরনের আবহাওয়া যেমন- ঠাণ্ডা, গরম, আর্দ্রতা ও শুষ্কতা ইত্যাদি কারণে এই ফাটল দেখা দিতে পারে।
  • ইনসুলেটর পদার্থ ছিদ্রযুক্ত থাকলেঃ সাধারণত কম ফায়ারিং-এ ইনসুলেটর তৈরি করলে ছিদ্রযুক্ত অবস্থা দেখা দিতে পারে। এই ছিদ্রগুলি জলীয়বাষ্প শোষণ করে ইনসুলেটরের রেজিস্ট্যান্স কমিয়ে দেয়। এর ফলে ইনসুলেটরে কারেন্ট লিকেজ দেখা দেয় ও পাংচারের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।
  • ফ্লাশ ওভার সংঘটিত হলেঃ ইনসুলেটরের পোর্সিলিন অসম স্ফীত হলে ফ্লাশ ওভার হয়। বৃষ্টিতে ভেজা অবস্থায় ও ইনসুলেটরে ফাটল হলে আর্কিং ফ্যাক্টরের মান বেশি থাকা উচিত। ইনসুলেটরে ফ্লাশ ওভার যাতে না হয় সেজন্য হর্ণ বা রিং ব্যবহার করা হয়ে থাকে।
  • যান্ত্রিক পীড়ন বেশি হলেঃ ইনসুলেটরের গঠনগত ত্রুটি বিচ্যুতি থাকলে বা ইনসুলেটর পদার্থের গুণগতমান নিম্নমানের হলে সে ইনসুলেটর যান্ত্রিক পীড়ন বেশি সহ্য করতে পারেনা।
  • শর্ট সার্কিট হলেঃ অনেক সময় বড় বড় পাখি ইনসুলেটরের উপরে বাধা কন্ডাকটর ও ক্রস আর্মের মধ্যে শর্ট সার্কিটের সৃষ্টি করে ফলে ইনসুলেটর নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এজন্য বার্ড গার্ডস ইনসুলেটর ও ক্রাস আর্মের কাছাকাছি লাইনে সংযোজন করে এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

পিন ও সাসপেনশন ইনসুলেটরের তুলনামূলক সুবিধা ও অসুবিধা

সাসপেনশন ইনসুলেটর পিন ইনসুলেটর
সুবিধাসমূহ অসুবিধাসমূহ
১। ২৩০ কেভি পর্যন্ত লাইনে সাসপেনশন ইনসুলেটর তুলনামূলক কম খরচে স্বাচ্ছন্দে ব্যবহার করা যায়। ১। অতি উচ্চ ভোল্টেজ লাইনের উপযোগী পিন ইনসুলেটরের নির্মাণ ব্যয় বহুগুণ বেড়ে যায়।
২। ইনসুলেটর স্ট্রিং এ প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডিস্ক সিরিজে যুক্ত করে যে কোন ভোল্টেজ লাইনে ব্যবহার করা যেতে পারে। ২। পিন ইনসুলেটরে এই ধরনের ডিস্ক ব্যবহারের সুযোগ নেই।
৩। যে কোন একটি ইউনিট নষ্ট হলে পুরো ইউনিটের পরিবর্তে কেবল ঐ নষ্ট ইউনিট বদলিয়ে দিলেই চলে। ৩। এই ক্ষেত্রে সমস্ত ইনসুলেটরকে বদলাতে হয়।
৪। লাইনের কার্যকরী ভোল্টেজ বাড়ানোর দরকার হলে প্রয়োজনীয় সংখ্যক নতুন ইউনিট সংযোজন করলেই চলে। ৪। এই ক্ষেত্রে সমস্ত ইনসুলেটরকে অপসারণ করে ভোল্টেজ আনুপাতিক নতুন ইউনিট ব্যবহার করা প্রয়োজন হয়, যা ব্যয়বহুল ও অসুবিধাজনক।
অসুবিধাসমূহ সুবিধাসমূহ
১। পোল, টাওয়ার ও ক্রস আর্মের দৈর্ঘ্য বেশি হওয়া প্রয়োজন। ১। তুলনামূলক কম।
২। কার্যকরী ভোল্টেজ ৩৩কেভির নিচে হলে সাসপেনশন ইনসুলেটরের খরচ বেশি পড়ে। ২। খরচের দিক বিবেচনা করলে লো ভোল্টেজ হতে ৩৩ কেভি পর্যন্ত লাইনে পিন ইনসুলেটর ব্যবহৃত হয়।
৩। ইনসুলেটর স্ট্রিং এ তার অপেক্ষাকৃত বৃহৎ পরিসর নিয়ে দোল খায় বলে তারের স্পেসিং বেশি রাখা প্রয়োজন। ৩। এই ক্ষেত্রে তারের স্পেসিং তত বেশি রাখার প্রয়োজন হয় না।

 

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য ত্যাগ করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন।
দয়া করে, আপনার নাম এখানে লিখুন