Diploma Result

ডিপ্লোমা পর্ব সমাপনী পরিক্ষার ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর অনেকের ভালো পরিক্ষার দেওয়ার পরও আশানুরূপ ফল পায় না। যার কারণে ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের প্রয়োজন হয়। পলিটেকনিক বোর্ড চ্যালেঞ্জ

সাধারণত ফলাফল প্রকাশ হওয়ার ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের জন্য বোর্ড চ্যালেঞ্জ করতে হয়। অনেক ভালো পরিক্ষা দিয়েও আশানুরূপ ফল পাওয়া যায় না। তাই যে বিষয়ে আপনি ভালো পরিক্ষা দিয়েছেন, কিন্তু ফলাফল আপনার মনের মত হয়নি তবে আপনি অব্যশই বোর্ড চ্যালেঞ্জ করবেন। পলিটেকনিক বোর্ড চ্যালেঞ্জ

ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপ্লোমা ইন ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি, ডিপ্লোমা ইন টেক্সটাইল ফলাফল ২০১৯ (জুন-জুলাই) দেখুন এখানে

বোর্ড চ্যালেঞ্জ নিয়ে কিছু প্রশ্ন

    • বোর্ড চ্যালেঞ্জ কেন করবেনঃ আপনার যদি মনে হয় বাংলাতেতো আমার প্লাস থাকার কথা যার কারণে আমি ৩.৯০ পেতাম। কিন্তু ফলাফল এসেছে বাংলাতে ফেল। আপনি যদি ১০১% শিওর হয়ে থাকেন যে আপনি বাংলা ভালো পরিক্ষা দিয়েছি কিন্তু এই বিষয়ে কিভাবে রেফার্ড আসে। তবে আপনি অবশ্যই বোর্ড চ্যালেঞ্জ করবেন।
    • কিভাবে বোর্ড চ্যালেঞ্জ করবোঃ সাধারণত ফলাফল প্রকাশের ৩ থেকে সর্বোচ্চ ৫ দিনের মধ্যে ফলাফল পুনঃনিরীক্ষণের নোটিশ দিয়ে দেয় বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড (BTEB). নোটিশ হাতে পাওয়ার পর নিজের নিজের কলেজ কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করবেন।
    • কি কি কাগজ পত্র লাগবেঃ (ক) আপনি যে সেমিস্টার এ পরিক্ষা দিয়েছিলেন সেই সেমিস্টার এর অ্যাডমিট কার্ডের ফটোকপি (খ) আপনার রেজাল্ট শিটের ফটোকপি (গ) পরিক্ষা নিয়ন্ত্রণ বরাবর আবেদন পত্র তবে অবশ্যই আবেদন পত্রে কলেজ প্রিন্সিপাল এর সাক্ষর থাকতে হবে।
    • বোর্ড চ্যালেঞ্জ করতে কত টাকা লাগেঃ

      প্রতি বিষয়ে ৩০০ টাকা প্রয়োজন হবে। মনে রাখবেন এই টাকা অবশ্যই ব্যাংক ড্রাফট করে ফাঠাতে হবে। আপনি যদি ব্যাংক ড্রাফট করতে না পারেন তবে কলেজ কর্তৃপক্ষকে বললে তারাই করে দিবে।

    • বোর্ড চ্যালেঞ্জ করে কি লাভঃ আগেই বলেছি আপনার যদি মনে হয় বাংলাতে আপনার প্লাস থাকার কথা বা গণিতে ভালো পরিক্ষা দিয়েও রেফার্ড আছে। আপনি যদি ১০১% শিওর হয়ে থাকে গণিতে আমার পাশ করার কথা। তাহলে আপনি বোর্ড চ্যালেঞ্জ করনে। বোর্ড চ্যালেঞ্জ এ অনেকে ৪.০০ পয়েছে।
    • দালাল হতে সাবধানঃ ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকে ফেসবুক এর বিভিন্ন গ্রুপে বা পেজে লক্ষ করে থাকবেন কেউ কেউ লিখছে ফলাফল পরিবর্তনের জন্য আমার সাথে যোগাযোগ করুন বা এই নাম্বারে কল দিন। প্রতি বিষয় মাত্র ১০০০ টাকা দিয়ে ফলাফল পরিবর্তন করে দেওয়া হবে। খবরদার এদের ফাদে পা দিবেন না। এনারা আগে অর্ধেক টাকা নিয়ে পরে ফোন বন্দ করে রাখবে।
    • আমি ঢাকায় থাকি, বোর্ডে সরাসরি গেলে কাজ হবে নাঃ বোর্ড চ্যালেঞ্জ সংক্রান্ত অফিশিয়াল কাজে আপনি গেলে কোন কাজ হবে না। বরং সেখানে দালালের ফাদে পা দিতে পারেন। সুতরাং এই সমস্ত কাজে আপনি বা আমি বা কোন ছাত্র-ছাত্রী গেলে কাজ হবে না।

জুন-জুলাই ২০১৯ বোর্ড চ্যালেঞ্জ করার নোটিশ পলিটেকনিক বোর্ড চ্যালেঞ্জ

অনলাইনে আবেদনের তথ্য এন্ট্রি করার পদ্ধতি

  1. প্রথমে আপনাকে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের http://www.bteb.gov.bd/  সাইটের হোম পেজে যেতে হবে।
  2. এরপর উত্তরপত্র পুণঃনিরীক্ষণ/স্থগিত ফলাফল ( ডিপ্লোমা পর্যায়, এইচ এস সি পর্যায়, এস এস সি পর্যায়) অর্থাৎ আপনি যে পর্যায়ের বোর্ড চ্যালেঞ্জ করবেন সেটার উপরে ক্লিক করুন।
  3. এরপর এই ছবির মত অপশন আসবে এখানে আপনার যাবতীয় তথ্য দিয়ে ফরম পুরণ করতে হবে। পলিটেকনিক বোর্ড চ্যালেঞ্জ

আরো পড়ুনঃ

4 COMMENTS

    • বোর্ড চ্যালেঞ্জ রেজাল্ট কবে দিবে সেই নোটিশ এখনো bteb দেয়নি। তবে খুব তাড়াতাড়ি পেবে যাবেন। রেজাল্ট দেওয়ার সাথে সাথে। নোটিশ পেয়ে যাবেন।

  1. সর্বচ্চ কয়টা সাবজেক্ট বোর্ড চ্যালেঞ্জ করা জায়

    • এই রকম কোন বাধা ধরা নেই আপনি সব বিষয়ে বোর্ড চ্যালেঞ্জ করতে পারবেন।
      ধন্যবাদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here