সিঙ্গেল ফেজ মোটর এর ঘূর্ণনের দিক পরিবর্তন

0
126

প্রিয় পাঠক আজকে আমরা জানবো কিভাবে রিলে এবং টাইমার ব্যবহার করে সিঙ্গেল ফেজ মোটর এর ঘূর্ণনের দিক পরিবর্তন করা যায়। তো চলুন বিস্তারিত জেনে আসি।

সিঙ্গেল ফেজ মোটরের রানিং ওয়াইন্ডিং বা স্টার্টিং ওয়াইন্ডিং যে কোন কয়েলের কারেন্টের দিক পরিবর্তন হলে মোটর উল্টাদিকে ঘুরে। এখানে উল্লেখ যে একই সাথে উভয় কয়েলের কারেন্টের দিক পরিবর্তন হলে মোটরের ঘূর্ণনের দিকের কোন পরিবর্তন হয় না। তবে ক্যাপাসিটর মোটরের স্টার্টিং কয়েলের পরিবর্তে রানিং কয়েলে সংযোগ করলে মোটর উল্টো ঘুরে।

উপরের চিত্রে একটি ক্যাপাসিটর মোটরের ঘূর্ণনের দিক পরিবর্তন পদ্ধতি বর্ণনা করা হল। উক্ত সার্কিটের কন্ট্রোল সেকশনে ফরোয়ার্ড কয়েল (F), রিভার্স কয়েল (R) ফরোয়ার্ড কন্টাক্ট (F) এবং রিভার্স কন্টাক্ট (R) রিভার্স সুইচ, ফরোয়ার্ড সুইচ ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়েছে। মোটরের ফরোয়ার্ড সুইচ পুশ করলে ইন্টারলক “R”(Nc) এর মাধ্যমে F কয়েলে উত্তেজিত হয়। ফলে ফরোয়ার্ড কন্টাক্ট “F” বন্ধ হয়ে যায়। সুতরাং ক্যাপাসিটর “C” স্টার্টিং কয়েল (S) এর সাথে সিরিজে যুক্ত হয়ে যায়। সুতরাং মোটর ফরোয়ার্ড ডিরেকশনে চলে।

এখন রিভার্স বাটন পুশ করলে “F” কয়েলের মধ্যদিয়ে কারেন্ট প্রবাহিত হয় না। ফলে “F” কন্টাক্ট খুলে যায়। অতপর “F” ইন্টারলক (Nc) এর মাধ্যমে “R” কয়েল উত্তেজিত হয়, ফলে “R” কন্টাক্ট বন্ধ হয়ে যায়। সুতরাং ক্যাপাসিটর “C” রানিং ওয়াইন্ডিং এর সাথে সিরিজে যুক্ত হয়। সুতরাং মোটর উল্টোদিকে ঘুরতে থাকে।

গঠনঃ

এক ফেজ ইন্ডাকশন মোটরের স্টেটরে দুটি ওয়াইন্ডিং থাকে। একটি মেইন ওয়াইন্ডিং অন্যটি সাহায্যকারী ওয়াইন্ডিং। মোটরটি রিভার্সিবল ক্যাপাসিটর টাইপ হলে ওয়াইন্ডিং দুটি পুরোপুরি একই রকম হওয়া দরকার, যেখানে ক্যাপাসিটরের সাথে যুক্ত ওয়াইন্ডিংটি সাহায্যকারী ওয়াইন্ডিং হিসেবে বিবেচিত হয়।



এক্ষেত্রে মোটরের ঘূর্ণন অভিমুখ পরিবর্তন করতে হলে ক্যাপাসিটরের সাথে যে কোন একটি ওয়াইন্ডিং এর সংযোগ উলটে দিতে হয় অর্থাৎ ফরোয়ার্ড ডিরেকশনে যেটি সাহায্যকারী ওয়াইন্ডিং, রিভার্স ডিরেকশনে সেটিই মেইন ওয়াইন্ডিং এ রূপান্তরিত হয়। এই সার্কিট টাইমিং রিলে, ক্লোজিং কন্টাক্টর, টাইমার, ফরোয়ার্ড-রিভার্স বাটন, সিলিং কন্টাক্ট, সেফটি কন্টাক্ট, ওভারলোড রিলিজ কয়েল/কন্টাক্ট, ফরোয়ার্ড-রিভার্স কন্টাক্ট এবং স্টপ পুশ সুইচের সমন্নয়ে গঠিত। এক ফেজ ক্যাপাসিটর স্টার্ট ও রান মোটরের ঘূর্ণনের অভিমুখ পরিবর্তনযোগ্য রিলে টাইমার সমৃদ্ধ নিয়ন্ত্রণ নিম্নে দেখানো হল।

কার্যপদ্ধতিঃ

যখন FOR বাটন পুশ করা হয়, তখন “F” কন্টাক্ট এনার্জাইজ হয় এবং সেফটি বাটন “f” ওপেন ও সিলিং কন্টাক্ট “F1” ক্লোজ হয়ে ফরোয়ার্ড সার্কিট সিল করে দেয়। এ সময় টাইমিং রিলে “Ir” এনার্জাইজ হয়ে পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুযায়ী টাইমার এর মাধ্যমে “F2” ক্লোজ হয়ে যায়। এ অবস্থায় “A” ওয়াইন্ডিং এর সাথে সিরিজে ক্যাপাসিটর সংযোগ ঘটায় মোটরটি স্বাভাবিক ফরোয়ার্ড ডিরেকশনে চলতে থাকে। এ সময় রিভার্স কন্টাক্ট সমূহ অকার্যকর থাকে।

উল্টো অভিমুখে ঘূরানোর জন্য স্টপ বাটন পুশ করে টাইমিং রিলেকে ডি-এনার্জাইজ করা হয়। মোটর স্থির অবস্থায় এলে “REV” বাটন পুশ করতে হয়। এতে কন্ট্রোল রিলে “CR” এনার্জাইজ হয়ে নরমালি ক্লোজড কন্টাক্ট “CR1” ওপেনিং এর মাধ্যমে “F” কন্টাক্টরকে নিষ্ক্রয় রাখে এবং নিরাপত্তার কারণে ক্ষণিকের জন্য কন্টাক্ট “r” ওপেন করে।

অন্যদিকে নরমালি ওপেন কন্টাক্ট “CR2” কে ক্লোজিং এর মাধ্যমে “R” কন্টাক্টরকে এনার্জাইজ করে। ফলে কন্টাক্ট “R1” ক্লোজ হয়ে রিভার্স সার্কিট সিল করে দেয়। এ সময় টাইমিং রিলে “TR” পুনরায় এনার্জাইজ হয়ে পূর্ণ নির্ধারিত সময় অনুযায়ী টাইমার এর মাধ্যমে “R2” কন্টাক্টদ্বয় ক্লোজ করে। এ অবস্থায় “B” ওয়াইন্ডিং এর সাথে ক্যাপাসিটর এর সংযোগ ঘটে বিধায় মোটর বিপরীত অভিমুখে ঘুরতে শুরু করে।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য ত্যাগ করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন।
দয়া করে, আপনার নাম এখানে লিখুন